Breaking News
Home / News / জীবিত স্বামীকে মৃ’ত্যুসনদ, কা’রাগারে সেই মহিলা মেম্বার

জীবিত স্বামীকে মৃ’ত্যুসনদ, কা’রাগারে সেই মহিলা মেম্বার

রোববার (৩ অক্টোবর) সকালে আদালতের মাধ্যমে তাকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়। শারমিন আক্তার শিবালয় মডেল ইউনিয়ন পরিষদের ৭, ৮, ৯ নম্বর ওয়ার্ডের নারী সদস্য।

মামলা সূত্রে জানান গেছে, শিবালয় উপজেলার নবগ্রাম গ্রামের সফিকুল ইসলাম (৬৩) ২৭ সেপ্টেম্বর শিবালয় উপজেলার সমাজ সেবা দপ্তরে ঋণ তোলার জন্য যান। এ সময় কাগজপত্র দেখে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা জানান এই নামের ব্যক্তির মৃ’ত্যু হয়েছে। মৃ’ত্যুর প্রমাণ হিসেবে শিবালয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলাল উদ্দিনের স্বাক্ষরিত মৃ’ত্যুসদন দেখানো হয়।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী সফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে চেয়ারম্যান আলাল উদ্দিন, ইউপি সদস্য আব্দুর রউফ এবং নারী ইউপি সদস্য ও ভুক্তভোগীর স্ত্রী শারমিন আক্তারের বিরুদ্ধে থানায় মা’মলা করেন। ওই মামলায় শনিবার (২ সেপ্টেম্বর) সকালে নিজ বাড়ি থেকে শারমীনকে গ্রেফ’তার করে পুলিশ।

শিবালয় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ফিরোজ কবির বলেন, সফিকুল ইসলাম নামে এক ভুক্তভোগীর জীবিত অবস্থায় চেয়ারম্যান-মেম্বাররা যোগসাজশে মৃ’ত্যুসনদ দিয়েছেন।

এছাড়া বিষয়টি নিয়ে কারো কাছে জানালে তাকে হ’ত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছে বলে ভুক্তভোগী অভিযোগ করেন। প্রাথমিক তদন্তে অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় মা’মলা এজাহারভুক্ত হয়।তিনি আরও বলেন,

এ ঘটনায় শনিবার সকালে অভিযান চালিয়ে শারমিন আক্তারকে গ্রেফতার করা হয়। রোববার (৩ অক্টোবর) তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রে’ফতারে পুলিশ অভিযান অব্যাহত রেখেছে। খুব দ্রুত তাদের গ্রে’ফতার করা হবে।

About admin2

Check Also

চার যুগ অপেক্ষা, অবশেষে প্রথম সন্তানের মা হলেন ৭০ বছরের বৃদ্ধা! বিস্তারিত ভিতরে:

Binodontimes সাধারণত ৫০ বছর বয়সে অনেকে নাতি-নাতনিদের সঙ্গে সময় কাটান। আর ৭০ বছর হলে তো …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *