Home / Uncategorized / লকডাউনের হতাশায় স্ত্রীকে হ;ত্যা: সিসিটিভি ফুটেজে যা মিলল

লকডাউনের হতাশায় স্ত্রীকে হ;ত্যা: সিসিটিভি ফুটেজে যা মিলল

Binodontimes: লকডাউনে কাজ হারানোর হতাশায় স্ত্রীকে পু;ড়ি;য়ে মা;রে;ন হায়দরাবাদের এক যুবক। যদিও তিনি নিজের ও যুবতীর পরিবারকে জানান, করোনার ডেল্টা প্লাস প্রজাতিতে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে যুবতীর। সেই হ;ত্যা; কা;ণ্ডের সিসিটিভির একটি ফুটেজ পুলিশের হাতে এসেছে। কয়েকদিন আগে রাজ্যের তিরুপতিতে ওই নারীর ৯০ শতাংশ পু;ড়ে যাওয়া লা;শ উদ্ধার করে পুলিশ। এরপর তদন্তে নেমে হ;ত্যা; কা;ণ্ডে তার স্বামী শ্রীকান্ত রেড্ডির সম্পৃক্ততা পায় পুলিশ।

গা শি;উ;রে ওঠা ওই ভিডিওতে দেখা গেছে, কোলে শিশু সন্তান নিয়ে লাল রঙের একটি সুটকেস নিয়ে লিফটে উঠেন শ্রীকান্ত। এরপর তার ফ্ল্যাটে নামেন। সন্তানকে করিডোরের এক পাশে রেখে সুটকেসটি ফ্ল্যাটের দরজার সামনে রাখেন। এরপর সন্তান ও সুটকেস নিয়ে রুমে প্রবেশ করেন। কিছুক্ষণ পর ভারী সুটকেস নিয়ে লিফট দিয়ে নীচে নামেন। ফ্ল্যাট থেকে বের হওয়ার সময় প্রতিবেশী এক নারী তার শিশু সন্তানকে আদর করেন। শ্রীকান্তের সঙ্গে ওই নারীর কথা বলতেও দেখা যায়। কিন্তু তাকে দেখে বোঝার উপায় নেই স্ত্রীর পো;ড়া লা;শ বহন করে নিয়ে যাচ্ছেন!

তবে শ্রীকান্তের হিসাবে একটু ভুল হয়ে যায়। তিনি যে সরকারি হাসপাতালের কাছে সুটকেসটি ফেলে এসেছিলেন, সেই হাসপাতালের সিসিটিভি ক্যামেরায় ধ;রা পড়ে সেই দৃশ্য।

সেই ফুটেজে দেখা যায়, ক্যাব চালকের সহায়তায় এক যুবক স্যুটকেসটি ফেলে চলে যায়। ফুটেজ থেকে ক্যাবের নাম্বার নিয়ে চালককে খুঁজে বের করে পুলিশ। সেই সূত্র ধরে শ্রীকান্ত রেড্ডিকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

CCTV footage shows #SreekanthReddy had bought large red suitcase about a week ago & took it home; subsequently moved loaded box out of home, all the while carrying baby; suspicion is wife & techie Bhuvaneswari’s body was inside suitcase & he tried to dispose it @ndtv @ndtvindia pic.twitter.com/WYJBtGnz5H

— Uma Sudhir (@umasudhir) June 29, 2021

পুলিশ জানিয়েছে, ভুবনেশ্বরীকে মারার পর শপিংমল থেকে স্যুটকেস কিনে আনেন শ্রীকান্ত। এরপর স্ত্রীর লা;শ তাতে ভরে ফ্ল্যাট থেকে বের করে নিয়ে যান। যখন তার লা;শ উদ্ধার করা তখন তার হাড় এবং মাথার খু;লি ছাড়া কিছুই অবশিষ্ট ছিল না।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে শ্রীকান্ত পুলিশকে জানিয়েছে, লকডাউনের জেরে চাকরি হারান তিনি। এ নিয়ে বেশ কিছুদিন হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েন। এক সময় হতাশা আর ক্ষো;ভ উগড়ে দেন নিজের স্ত্রী ভূবনেশ্বরীর ওপর। স্ত্রীকে হ;ত্যা;র পর পু;ড়ি;য়ে ফে;লে;ন। এরপর দ;গ্ধ লা;শ একটি স্যুটকেসে ভরে ফেলে দেন এক হাসপাতালের সামনে পরিত্যক্ত স্থানে।

নিহতের পরিবারের বরাতে তিরুপতি থানা পুলিশ জানিয়েছে, ২০১৯ সালে কাদাপার শ্রীকান্ত রেড্ডির সঙ্গে বিয়ে হয় ভুবনেশ্বরীর। তাদের ১৮ মাসের একটি মেয়েও রয়েছে। লকডাউনে কাজ হারান শ্রীকান্ত। তারপর থেকেই ম;দে;র নে;শা;য় বুঁ;দ হয়ে থাকতেন। বিষয়টি নিয়ে ভূবনেশ্বরীর সঙ্গে ঝ;গ;ড়া হতো। গত ২২ জুন ঝ;গ;ড়া;র মধ্যে মেজাজ হারিয়ে ভুবনেশ্বরীকে খু;ন করেন শ্রীকান্ত। পরে স্ত্রীর মৃতদে;হ পু;ড়ি;য়ে একটি স্যুটকেসে ভ;রে গভীর রাতে ফে;লে দিয়ে আসেন।

খুনের পর শ্রীকান্ত নিহতের বাবা-মাকে জানান, করোনার আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ভুবনেশ্বরীর। বিষয়টি খটকা লাগে ভুবনেশ্বরীর পরিবারের। বেশ কয়েকটি হাসপাতাল এবং ম;র্গে খোঁজ চালান তারা। মরদে;হ খুঁজে না পেয়ে থানায় ভুবনেশ্বরীর নিখোঁজের অভিযোগ করেন তারা।নিহত ভুবনেশ্বরী টাটা কনসালটেন্সি সার্ভিসে কর্মরত ছিলেন। আর শ্রীকান্ত পেশায় প্রকৌশলী।

পুলিশ জানিয়েছে, লকডাউনের সময় কাজ চলে যায় শ্রীকান্তর। তার পরেই ম;দে;র নে;শা;য় আ;স;ক্ত হয়ে পড়েন তিনি। এই নিয়ে মাঝেমধ্যেই তাদের মধ্যে ঝ;গ;ড়া হত। গত ২২ জুন দুইজনের মধ্যে ঝ;গ;ড়া;র পরেই রাগের মাথায় ভুবনেশ্বরীকে পু;ড়ি;য়ে মা;রে;ন শ্রীকান্ত। পরে রাতের দিকে স্ত্রীর মৃতদে;হ একটি স্যুটকেসে ভ;রে ফে;লে দিয়ে আসেন তিনি।

স্ত্রীকে খু;ন করার পরে তার ও নিজের পরিবারকে শ্রীকান্ত জানায়, করোনার ডেল্টা প্লাস প্রজাতিতে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ভুবনেশ্বরীর। তার দে;হ হাসপাতালের কর্মীরা পু;ড়ি;য়ে দিয়েছে। মিথ্যা বলেও অবশ্য শেষ রক্ষা হল না শ্রীকান্তর। তার সঙ্গে ক্যাব চালককেও গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

About admin

Check Also

অন’লাইনে শুক্রাণু কিনে ‘ই-বেবি’ জন্ম দিলেন নারী

দ্বিতীয় সন্তান নিতে আগ্রহী হন এক ব্রিটিশ নারী। কিন্তু ৩৩ বছর বয়সী স্টেফনি টেলর নতুন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *