Breaking News
Home / Uncategorized / ফাঁসির দড়ি গলায় পরে বসে ছিলেন গাছে, ৯৯৯-এ ফোনে যুবক উদ্ধার

ফাঁসির দড়ি গলায় পরে বসে ছিলেন গাছে, ৯৯৯-এ ফোনে যুবক উদ্ধার

Binodontimes: জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে এক কলারের ফোন পেয়ে ফাঁসির দড়ি গলায় বেঁধে গাছে বসে থাকা আ’ত্ম’হ’ত্যা চেষ্টাকারী এক যুবককে উদ্ধার করেছে কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস।

রোববার (২৭ জুন) বিকেলে জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এর পরিদর্শক আনোয়ার সাত্তার জাগো নিউজকে এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, রোববার সকাল সাড়ে ১০টায় একজন কলার কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জ থানার গুণধর ইউনিয়নের ইন্দাচুল্লী গ্রাম থেকে ফোন করে জানান, তাদের গ্রামে একটি রেইনট্রি গাছের ডালে ফাঁসির দড়ি টাঙিয়ে গলায় পরে এক যুবক বসে আছে।

তারা অনেক অনুরোধ করেছিলেন কিন্তু যুবক কিছুতেই তাদের কথা শুনছিলেন না। বরং হুমকি দিচ্ছিলেন কেউ যদি গাছে ওঠার চেষ্টা করে তবে তিনি লাফ দেবেন। ৯৯৯ তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টি করিমগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসে জানিয়ে দ্রুত উদ্ধারের ব্যবস্থা নেয়ার জন্য অনুরোধ জানায়।

খবর পেয়ে করিমগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের একটি উদ্ধাকারী দল দ্রুত ঘটনাস্থলে যায়।

পরে করিমগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধারকারী দলের প্রধান ফারুক আহমেদ ৯৯৯-কে ফোনে জানান, তারা তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাস্থলে গিয়ে যুবককে বোঝানোর চেষ্টা করছিলেন কিন্তু যুবক হুমকি দিচ্ছিলেন তাদেরকে চলে যেতে না হলে গাছ থেকে তিনি লাফ দেবেন।

কথা বার্তার এক পর্যায়ে যুবক গাছ থেকে লাফ দেন, কিন্তু সৌভাগ্যক্রমে তিনি গাছের নিচে পানিতে পড়েন। এরপরে দ্রুত ফায়ার সার্ভিসের দল যুবককে উঁচু করে ধরে রাখেন এবং তার গলায় লাগানো ফাঁসির দড়ি কেটে দেয়া হয়।

উদ্ধার যুবককে করিমগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হলে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়। পরে উদ্ধার যুবককে করিমগঞ্জ থানা পুলিশের একটি দল থানায় নিয়ে যায়।

করিমগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) কামরুজ্জামান ৯৯৯-কে বলেন, যুবকের মা-বাবা বেঁচে নেই। তিনি কৃষিশ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন। আত্মীয় পরিজনবিহীন অবস্থায় হতাশাগ্রস্থ হয়ে তিনি আ’ত্ম’হ’ত্যা’র চেষ্টা চালান বলে প্রাথমিকভাবে জানা যায়।

About admin

Check Also

ভারতের সঙ্গে খেলায় শোয়েবকে ‘জিজাজি’ বলে স্লোগান দর্শকদের (ভিডিও)

দীর্ঘ ২৮ মাস পরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের আঙিনায় মুখোমুখি হয়েছিল ভারত এবং পাকিস্তান। রোববার দুবাইয়ে টি-টোয়েন্টি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *