Breaking News
Home / National / মুঠোফোনে প্রেম, পড়ে অনৈতিক কর্মকান্ডে লিপ্ত হয়ে ছড়িয়ে দিলেন ভিডিও! বিস্তারিত ভিতরে:

মুঠোফোনে প্রেম, পড়ে অনৈতিক কর্মকান্ডে লিপ্ত হয়ে ছড়িয়ে দিলেন ভিডিও! বিস্তারিত ভিতরে:

Binodontimes: রাজশাহীর বাগমারায় প্রেমের সম্পর্ক গড়ে কিশোরীর সাথে অনৈতিক কর্মকান্ডের ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে করা মামলায় একজনকে আটক করা হয়েছেন। তাঁর নাম সোহেল রানা (২৮) ওরফে ফেসবুক লিটন। আজ সোমবার দুপুরে তাঁকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মামলার এজাহার, পুলিশ ও ভুক্তভোগী কিশোরীর পরিবার সূত্রে জানা যায়, কিশোরীর সঙ্গে সোহেল মুঠোফোনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। একপর্যায়ে অনৈতিক কর্মকান্ড করেন তিনি। অনৈতিক কর্মকান্ডের ভিডিও ধারণ করে তা অনলাইনে ছড়িয়ে দেন তিনি।

কিশোরী এই ঘটনার পর সোহেলকে এড়িয়ে চলতে শুরু করে এবং ঘটনাটি তার পরিবারের সদস্যদের জানায়। সোহেল অনৈতিক কর্মকান্ডের ভিডিও ও মেয়েটির ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেন।

গতকাল রোববার মেয়েটির পরিবার বিষয়টি থানাকে জানায়। কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে অনৈতিক কর্মকান্ডের আইনে থানায় মামলা করেন। ওই মামলায় পুলিশ বখাটে সোহেলকে আটক করে। আজ তাঁকে কারাগারে পাঠানো হয়।

স্থানীয় লোকজনের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, সোহেল রানা ওরফে লিটন এলাকায় ফেসবুক লিটন হিসেবে পরিচিত। ফেসবুক নিয়ে ব্যস্ত থাকায় এলাকায় তিনি ছোট-বড় সবার কাছে এই নামে পরিচিত।

এলাকায় তিনি বখাটে হিসেবে পরিচিত। স্কুল ও কলেজের মেয়েদের উ’ত্ত্য’ক্ত করার একাধিক অভিযোগ আছে তাঁর বি’রু’দ্ধে। এ নিয়ে সামাজিকভাবে একাধিকবার সালিসও হয়েছে। কিশোরীর মা–বাবা এই ঘটনায় বখাটের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন। বাগমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাক আহম্মেদ প্রথম আলোকে বলেন, লিটন তিনটি বিয়ে করেছেন।

দুই স্ত্রীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হওয়ার পর তৃতীয় স্ত্রীর সঙ্গে সংসার করছেন তিনি। পুলিশ বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে তাঁকে আটক করেছে। মামলার বিষয় আঁচ করতে পেরে সকালে তিনি রাজশাহী শহরে চলে যান। পুলিশ তাঁর পিছু নিলে তিনি ঘন ঘন স্থান পরিবর্তন করেন। রাতে বাড়ি ফিরে এলে পুলিশ তাঁকে আটক করে।

About admin

Check Also

আমরা যু’দ্ধ করেছিলাম, আর সেই যুদ্ধে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন, শ’হীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান- বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী” বিস্তারিত ভিতরে ‘

Binodontimes: আমরা যুদ্ধ করেছিলাম,আর সেই যুদ্ধে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন, শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান- আপনি হাসিনা যতই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *