Breaking News
Home / জাতীয় / মা ও ছেলেকে গাছে বেঁধে নির্যাতনের পর তাদের নামেই মামলা ‘বিস্তারিত দেখুন’

মা ও ছেলেকে গাছে বেঁধে নির্যাতনের পর তাদের নামেই মামলা ‘বিস্তারিত দেখুন’

নো’য়া’খা’লীর কোম্পানী’গঞ্জের চরএলাহীতে তুচ্ছ ঘটনায় মা-ছেলে’কে গাছে বেঁধে নির্যাতনের পর এবার সেই মা-ছেলেসহ প’রি’বা’রের লোক’জনের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে হয়’রা’নি’র অ’ভিযোগ পাওয়া গেছে।শনিবার (৫ জুন)

বি’কেলে নির্যাতিত মা বিবি খাদিজা গণমাধ্যমকে এ কথা জানান।তিনি বলেন,প্রভাবশালী মো.জা’হাঙ্গীর নোয়াখালীর চিফ জু’ডি’শি’য়া’ল ৩ নম্বর আ’মঃলি আদালতে ৫ মে তা’দে’র বিরুদ্ধে মা’ম’লা করেন। এতে মো’ট পাঁ’চজনকে

আ’সা’মি করা হয়।পরে বিচা’রক মাম’লাটি কোম্পানীগঞ্জ থানা পুলি’শের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) এফআইআর হি’সে’বে রুজু করার নি’র্দে’শ দেন।এরপর গত ১০ মে থানায় মা’ম’লা রেকর্ড করা হয়।মাঃমলা নম্বর-১৯।থানা

সূত্র জা’নায়,মামলায় ভুট্টো (৪৯),আইয়ুব খান (২০), মো. জাবেদ হোসেন (৫০), মো. বাবলু (২৮) ও বিবি খা’দি’জাঃকে (৩৬) আ’সামি করা হয়।এর মধ্যে বিবি খাদিজা ও আইয়ুব খান নির্যা’তিত মা-ছেলে।বিবি খাদিজা

অ’ভি’যো’গ করে বলেন,আমরা গরিব মানুষ।আ’মাদের অ’মা’নু’ষি’ক নির্যাতন করে এখন আবার মাম”লা দিয়ে হয়’রা’নি করছে।আ’ম’রা খেতে পাই না,মা’মলার খরচ জো’গা’ড় করব কো’থা থেকে।এ ঘ’ট’না’র তদন্তপূর্বক

ন্যা’য়’বি’চা’রও দাবি করেন তিনি।কো’ম্পা’নীগঞ্জ থানা পুলিশের ভা’র’প্রাঃপ্ত কর্ম’কর্তা (ওসি) মীর জাহেদুল হক রনি মা’ম’লার’ বিষয়টি নি’শ্চি’ত করেন।তিনি বলেন, আদালতের নি’র্দে’শনা মোতাবেক মামলাটি নথিভুক্ত করা

হ’য়েছে।তদন্ত করে প্রকৃত ঘটনা উদ্ঘাট’নের চেষ্টা চলছে।প্রসঙ্গত,গত ১ মে শনিবার দুপুর ১টার দিকে উপজেলার চর’এলাহী ই’উ’নিয়নের ২নং ওয়ার্ডের চরকলমি গ্রামের সা’হা’দাত নগরের খাল পাড়ে বর্গা জমির ধান খাওয়ায়

স্থা’নী’য় প্র’ভাবশালী জাহা’ঙ্গীরের গরুকে পিটিয়ে তাড়িয়ে দেয় জাবেদ হো’সে’নেঃর ছেলে আইয়ুব খান।এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে জা’হা’ঙ্গী’র,তার ছেলে মাসুদ ও সহ’যোগী সাইফুল আ’ইয়ু’বকে হাত-পা বেঁধে মারধর করেন। তাঁকে বাঁচাতে মা এগিয়ে গেলে মা-ছেলেকে গাছে বেঁধে নির্যাতন করা হয়।এ ঘ’ট’নার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফে’স’বু’কে ‘ভাই’রা’ল হয়।

About admin

Check Also

সন্তানের চিকিৎসা করাতে গিয়ে থানাহাজতে বাবা ‘বিস্তারিত ভিতরে’

Binodontimes: রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শিশুসন্তানের চিকিৎসা ”করাতে গিয়েছিলেন একটি ওষুধ কোম্পানির এলাকা ব্যবস্থাপক ওমর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *