Home / Uncategorized / জাতিসংঘের পুরস্কার জিতলেন এমিনি এরদোগান ‘বিস্তারিত পড়ুন’

জাতিসংঘের পুরস্কার জিতলেন এমিনি এরদোগান ‘বিস্তারিত পড়ুন’

জাতিসংঘের ‘ওয়েস্ট ওয়াইজ সিটিজ গ্লো’বাল চাম্পিয়ন’ পুরস্কার জিতেছেন তুরস্কের ফার্স্ট লেডি এমিনি এরদোগান। সুস্থ পরিবেশ গড়ার প্রচেষ্টা হিসেবে জাতি’সংঘের সংস্থাটি (ইউএন হ্যাবিট্যাট) তাকে এই পুরস্কারে ভূষিত করেছে।

তুরস্কের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা আনা’দোলু এজেন্সির খবরে বলা হয়েছে, বুধবার রাজধানী আঙ্কারায় এক অনুষ্ঠানে জাতি’সংঘের মানব বসতি কর্মসূচির নির্বাহী পরি’চালক মাইমুনাহ মোহাম্মদ শরীফ তার হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

অনুষ্ঠানে ইউএন হ্যাবিট্যাটের নির্বাহী পরি’চালক এমিনি এরদোগানের নেওয়া ‘সুস্থ পরিবেশ এবং জিরো বর্জ্য’ পদ’ক্ষেপের প্রশংসা করেন। বিশ্ব বর্জ্য সংকট মোকা’বেলায় নেওয়া এই উদ্যোগে ইতোমধ্যে বিশ্বের ২০০টি শহরে ছড়িয়ে পড়েছে বলেও জানান তিনি।

তুরস্কের ফার্স্ট লেডিকে ‘ওয়েস্ট ওয়াইজ সিটিজ গ্লোবাল চাম্পিয়ন’ পুরস্কার প্রদান করতে পেরে জাতি’সংঘের এই কর্মকর্তা আনন্দিত উল্লেখ করে, অনু’প্রেরণাদায়ী উদ্যোগ এবং বৈশ্বিক নেতৃত্বের জন্য এমিন এরদোগান’কে ধন্যবাদ প্রদান করেন।

জাতি’সংঘের ‘ওয়েস্ট ওয়াইজ সিটিজ গ্লোবাল চাম্পিয়ন’ পুরস্কার জিতেছেন তুরস্কের ফার্স্ট লেডি এমিনি এরদো’গান। সুস্থ পরিবেশ গড়ার প্রচেষ্টা হিসেবে জাতিসংঘের সংস্থাটি (ইউএন হ্যাবিট্যাট) তাকে এই পুরস্কারে ভূষিত করেছে।

তুরস্কের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা আনাদোলু এজেন্সির খবরে বলা হয়েছে, বুধবার রাজধানী আঙ্কারায় এক অনুষ্ঠানে জাতি’সংঘের মানব বসতি কর্মসূচির নির্বাহী পরিচালক মাইমুনাহ মোহাম্মদ শরীফ তার হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

অনুষ্ঠানে ইউএন হ্যাবিট্যাটের নির্বাহী পরিচালক এমিনি এরদোগানের নেওয়া ‘সুস্থ পরিবেশ এবং জিরো বর্জ্য’ পদ’ক্ষেপের প্রশংসা করেন। বিশ্ব বর্জ্য সংকট মোকা’বেলায় নেওয়া এই উদ্যোগে ইতোমধ্যে বিশ্বের ২০০টি শহরে ছড়িয়ে পড়েছে বলেও জানান তিনি।

তুরস্কের ফার্স্ট লেডিকে ‘ওয়েস্ট ওয়াইজ সিটিজ গ্লোবাল চাম্পিয়ন’ পুরস্কার প্রদান করতে পেরে জাতি’সংঘের এই কর্মকর্তা আনন্দিত উল্লেখ করে, অনু’প্রেরণাদায়ী উদ্যোগ এবং বৈশ্বিক নেতৃত্বের জন্য এমিন এরদোগানকে ধন্যবাদ প্রদান করেন।

পুরস্কার গ্রহণের পর তুরস্কের ফার্স্ট লেডি এমিনি এরদোগান বলেন, সবুজ পরিবেশ গড়তে তুরস্ক এবং ইউএন হ্যাবিট্যাট পরস্পরকে দৃঢ়ভাবে সহযোগিতা করবে। তিনি বলেন, আমরা বিশ্বাস করি বর্জ্য সচেতন শহর প্রকৃতি এবং পরিবেশের সঙ্গে তাল মিলিয়ে তাৎপর্যরপূর্ণভাবে অবদান রাখবে।

তুরস্কের তরুণদের পক্ষ থেকে পুরস্কার গ্রহণ করছেন উল্লেখ করে এমিনি এরদোগান বলেন, পরিবেশের মতো বিষয়ে তুরস্কের তরুণদের সংবেদনশীলতা আগামীর শুভদিনের অগ্রদূত হিসেবে কাজ করবে। বর্তমান প্রজন্মই জলবায়ু সংকট লাঘব করতে পারবে।

পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে পরিবেশ কর্মীরা পরিবেশ নিয়ে তাদের ভবিষ্যত প্রত্যাশা এমিন এরদোগানোর সঙ্গে শেয়ার করেন। তাদের প্রত্যাশা এবং দাবি নোট করে তারা ফার্স্ট লেডি ও জাতিসংঘের কর্মকর্তার কাছে দেন।

কর্মসূচি শেষে এমিন এরদোগান, জাতিসংঘঠ কর্মকর্তা শরীফ এবং তুরস্কের পরিবেশমন্ত্রী মুরাত কুরুম অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী তরুণদের সঙ্গে আলোচনায় অংশ নেন।

About admin

Check Also

অন’লাইনে শুক্রাণু কিনে ‘ই-বেবি’ জন্ম দিলেন নারী

দ্বিতীয় সন্তান নিতে আগ্রহী হন এক ব্রিটিশ নারী। কিন্তু ৩৩ বছর বয়সী স্টেফনি টেলর নতুন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *