Breaking News
Home / Uncategorized / করোনা সন্দেহে এলেন না কেউ, হিন্দু বৃদ্ধার দেহ সৎকারে মুসলিমরা! ‘বিস্তারিত দেখুন’

করোনা সন্দেহে এলেন না কেউ, হিন্দু বৃদ্ধার দেহ সৎকারে মুসলিমরা! ‘বিস্তারিত দেখুন’

করোনায় মৃত্যু হয়েছে ভেবে ১২’ ঘণ্টা বাড়ির মধ্যে পড়েছিল এক হিন্দু বৃদ্ধার লাশ। কোনো আত্মীয় বা প্রতিবেশী এগিয়ে না আসায় পাশের গ্রামের মুসলমান’রা এসে ওই বৃদ্ধার শেষ’কৃত্য সম্পন্ন করেন।

মঙ্গল’বার ভারতের উত্তর ২৪ পর’গনার দেগঙ্গার চাকলা গ্রাম পঞ্চায়েতের উত্তর সুবর্ণপুর দাসপাড়া এলাকায় এমন ঘটনা ঘটেছে। বুধবার এ খবর জানিয়েছে কলকাতার সংবাদ মাধ্যম আনন্দ’বাজার পত্রিকা।

খবরে বলা হয়, দেগঙ্গা থানায় কর্তব্য’রত সিভিক ভলান্টিয়ার রাম দাসের মা বিমলা দাস (৬৫) গত ১৫ দিন ধরে জ্বরে আক্রান্ত। বাড়িতে রেখে তার চিকিৎসা চালানো হচ্ছে।

সোমবার রাত ১০টা নাগাদ ওই বৃদ্ধার মৃত্যু হয়। মায়ের মৃত্যুর পরে রাম, তার বোন ও বাবা মিলে আত্মীয়, প্রতিবেশীদের কাছে খবর দেন। কিন্তু ওই’ বৃদ্ধার করোনায় মৃত্যু হয়েছে, এই সন্দেহে আত্মীয়-স্বজন ও প্রতিবেশী কেউ এগিয়ে আসেন’নি।

অবশেষে পাশের পাড়ার মুসলিম সম্প্রদা’য়ের লোকজন এগিয়ে আসেন বৃদ্ধার মৃত’দেহ সৎকার করতে। বৃদ্ধার মৃতদেহকে খাটিয়ায় করে নিয়ে শেষকৃত্য সম্পন্ন করেন তারা। সঙ্গে ছিলেন পরিবারের সদস্যরা।

বৃদ্ধার ছেলে রাম বলেন, আমার আত্মীয়-স্বজন, প্রতিবেশী, কেউ এগিয়ে আসেননি। শেষ পর্যন্ত মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ পাশে এসে দাঁড়িয়ে’ছেন। তাই মায়ের শেষকৃত্য সম্পন্ন করতে পেরেছি।

পাশা’পাশি তৃণমূলের অঞ্চল সভাপতি মিলন দেব’নাথ এই ঘটনা প্রসঙ্গে বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে স্থানীয় মুসলমান সম্প্রদায়ের মানুষ যেভাবে সম্প্রীতির নজির তৈরি গড়লেন, তা দেগঙ্গার মানুষ সারা জীবন মনে রাখবে।

About admin

Check Also

আল জাজিরার সাংবাদিককে হিন্দুত্ববাদীদের হুমকি ‘বিস্তারিত ভিতরে’

Binodontimes: আন্ত’র্জাতিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরার সাংবাদিককে ‘জিহাদী’ বলে বিভিন্ন হিন্দু”ত্ববাদী গোষ্ঠী ও ব্যক্তি প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *