Breaking News
Home / Uncategorized / কাঁদলেন সুয়ারেজ, ধুয়ে দিলেন বার্সেলোনাকে

কাঁদলেন সুয়ারেজ, ধুয়ে দিলেন বার্সেলোনাকে

মাঠের এক পাশে বসে মোবাইল হাতে পরিবারের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে কাঁদছেন লুইস সুয়ারেজ। কাঁদলেন সংবাদ সম্মেলনে কথা বলতে গিয়েও। আজকের এ কান্না যে তার কষ্টের নয়। আনন্দের কান্না। এ কান্নায় জবাব দিয়েছেন অনেক কিছুরই। কারণ বার্সেলোনা থেকে তার বিদায়টা যে সুখকর ছিল না। রীতিমতো অপমানজনক। তার কান্নায় যেন সে সব কষ্ট ধুয়েমুছে গেল। পাশাপাশি সাবেক ক্লাবকেও ধুয়ে দিলেন এ উরুগুইয়ান তারকা।

গত মৌসুমের বাজে ফলাফলের পর ক্লাবে পরিবর্তন আনার প্রথম ধাপ হিসেবে সুয়ারেজকে বিদায় করে বার্সেলোনা। ফুঁড়িয়ে গেছেন অপবাদ দিয়ে তাকে দল থেকে বিদায় নিতে বাধ্য করা হয়। এ সময় লা লিগারই আরেক ক্লাব অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ ব্যাপক আগ্রহ দেখিয়েই তাকে দলে টেনে নেয়। তাই এ ক্লাবের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করতেও কোনো ভুল করেননি বার্সার ইতিহাসের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতা।

শনিবার ভায়াদলিদের মাঠে স্বাগতিকদের ২-১ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে লা লিগার চ্যাম্পিয়ন হয় অ্যাতলেতিকো। অথচ ম্যাচের ১৮তম মিনিটে অস্কার প্লানোর গোলে গিয়ে গিয়েছিল ভায়াদলিদ। দ্বিতীয়ার্ধে ১০ মিনিটের ব্যবধানে দুই গোল করে এগিয়ে যায় অ্যাতলেতিকো। আনহেল কোরেয়া দলকে সমতায় ফেরানোর পর জয় সূচক গোলটি আসে লুইস সুয়ারেজের পা থেকে। তাই আবেগটা একটু বেশিই ছিল এ তারকার।

ম্যাচ শেষে লা লিগা টিভিকে দেওয়া সংক্ষিপ্ত সাক্ষাৎকারে ক্লাবকে ধন্যবাদ জানিয়ে সুয়ারেজ বলেন, ‘বার্সেলোনা আমাকে গুরুত্ব দেয়নি, আমাকে খাটো করে দেখেছে। অ্যাটলেটিকো তাদের দুয়ার খুলে আমাকে সুযোগ করে দিয়েছে। আমার ওপর আস্থা রাখার জন্য এই ক্লাবের প্রতি সবসময়ই কৃতজ্ঞ থাকব।’

অ্যাতলেতিকোর জার্সিতে সুয়ারেজ প্রথম মৌসুমেই লিগে ২১ গোলের পাশাপাশি শিরোপা স্বাদও পান। তাই একটু বেশিই উচ্ছ্বসিত এ উরুগুইয়ান, ‘আতলেতিকো যেভাবে আমাকে গ্রহণ করে নিয়েছিল, তাতে আমি খুশি। আমি যে এই পর্যায়ে এখনও পারফর্ম করতে পারি, তা দেখানোর সুযোগ তারা আমাকে দিয়েছিল। আমার ওপর আস্থা রাখার জন্য ধন্যবাদ।’

তবে বার্সেলোনা থেকে বাজে অভিজ্ঞতা নিয়ে বিদায় নেওয়ায় তার পরিবারকেও ভুগতে হয়েছে বলে জানান সুয়ারেজ, ‘আমার সঙ্গে আরও অনেককে ভুগতে হয়েছে। অনেক বছর ধরে আমি ফুটবল খেলছি, কিন্তু আমি মনে করি, এ বছর আমার পরিবার সবচেয়ে ভুগেছে। মৌসুমের শেষ ম্যাচে পারফর্ম করতে পারার অনুভূতি চমৎকার। আমার কাজ দলকে সাহায্য করা এবং গোল এনে দেওয়া। আতলেতিকো অনেক বড় ক্লাব এবং আমরা সেটা এই মৌসুমে দেখিয়েছি। আমরা সবচেয়ে ধারাবাহিক দল এবং এ কারণেই চ্যাম্পিয়ন।’

About admin

Check Also

ঘুমিয়ে পড়েছিলেন চালক, যে হাল হলো যাত্রীদের

টাঙ্গাই‌লের কা‌লিহাতী‌তে বাস খা‌দে প‌ড়ে ৬০ বছর বছর বয়সী এক বৃদ্ধ নি,হ,ত, হ‌য়ে‌ছেন। এ ঘটনায় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *