Breaking News
Home / Uncategorized / মক্কার ইমামকে আক্রমণ থেকে রক্ষাকারী পুলিশ কর্মকর্তাকে ‘হিরো’ উপাধি

মক্কার ইমামকে আক্রমণ থেকে রক্ষাকারী পুলিশ কর্মকর্তাকে ‘হিরো’ উপাধি

মক্কার গ্র্যান্ড মসজিদে একজন ইমামের উপর হামলা চালানোর চেষ্টা ব্যর্থ করায় একজন সাহসী সৌদি পুলিশ কর্মকর্তাকে “নায়ক” বলে সম্বোধন করা হয়েছে।

শুক্রবার সরাসরি টেলিভিশনের পর্দায় দেখা যায় সৌদি আরবের অন্যতম পবিত্র মসজিদে ইমামের উপরে হামলার চেষ্টা থামানো হয়েছিল। পরে ঘটনাটি তদন্তকারী পুলিশ প্রকাশ করেছে যে হামলাকারী ইমাম “মাহদী (মশীহের অপেক্ষায়)” বলে দাবি করেছে।

নিরাপত্তা কর্মকর্তা মোহাম্মদ আল-জহরানী, ইমামকে আক্রমণ করার সময় তাকে বাধা দিয়েতে সক্ষম হয়েছিল। এবং আক্রমণকারীকে অন্যান্য কর্মকর্তাদের সহায়তায় মসজিদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল।

আল-জহরানিকে একজন “নায়ক” হিসাবে অভিহিত করা হয়েছে এবং সোশ্যাল মিডিয়াজুড়ে তার প্রচেষ্টার জন্য সৌদিরা তাকে ধন্যবাদ জানায়।

একটি ব্যক্তি গ্র্যান্ড মসজিদে ওমরাহ পালন করতে (ইহরাম) সাদা কাপড় পরিহিত ছিল। লাইভ টেলিভিশনে দেখা গেছে যখন গ্র্যান্ড মসজিদের অন্যতম ইমাম শেখ বন্দর বলিলাহ জুমার খুতবা প্রদান করেছিলেন। ঠিক সেই সময় ব্যক্তিটি হামলা করতে দৌড়িয়ে আসে।

মক্কা পুলিশের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, আল-জহরানির হেফাজতে রাখার আগে তার পদক্ষেপের পরে তাকে নিরাপত্তা কর্মকর্তারা আটক করেছিলেন।

প্রকাশিত ঘটনা সত্ত্বেও ইমাম শেখ বলিলাহ তার খুদবা পড়া অব্যাহত রেখেছিলেন। আল-ওয়াতান পত্রিকা অনুসারে পুলিশের প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে যে অপরাধী একজন ৪০ বছর বয়সী সৌদি নাগরিক ছিলেন।

গত মার্চ মাসে, ছুরি চালিয়ে এক ব্যক্তি চরমপন্থী স্লোগান দিয়ে নামাজরত মুসল্লিদের মাঝে হাঁটাচলা করে এবং একটি চেয়ারে আঘাত করে ঘটনাস্থলের মুসল্লি এবং নিরাপত্তা বাহিনীর প্রচেষ্টায় তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এযাবৎ বেশ কয়েকজন লোক নিজেকে ইসলামের মুক্তিদাতা” ইমাম মেহেদী বলে দাবি করেছে।

সর্বাধিক হাই-প্রোফাইল ঘটনাটি ঘটেছিল ১৯৭৯ সালে, যখন জুহায়মান আল-ওতাইবি ও তাঁর ভগ্নিপতি মোহাম্মদ আল-কাহতানি, যিনি মাহদী হিসাবে দাবী করেছিলেন, কয়েকশ হাজী গ্র্যান্ড মসজিদে জিম্মি করে নিয়ে যায়, যার ফলে এক সপ্তাহব্যাপী অবরোধের সৃষ্টি হয়েছিল।

অবরোধটি ভেঙে দেওয়ার জন্য একটি পূর্ণ মাত্রার আক্রমণ শুরু হয়েছিল, যার ফলে তথাকথিত মশীহ এবং তার শত শত অনুসারীর মৃত্যু হয়েছিল। জুহায়মানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল এবং পরে তার অপরাধের জন্য মৃত্যুদন্ড কার্যকর করা হয়েছিল।

About admin

Check Also

ইসলামের দ্বিতীয় খলিফা উমর বিন খাত্তাব (রা.)-এর বংশধর শায়খ হাফিজুল্লাহ আর নেই

Binodontimes: সৌদি আরবের পবিত্র মসজিদে নববির পাশে অবস্থানকারী প্রবীণতম ব্যক্তিত্ব শায়খ মহিউদ্দিন হাফিজুল্লাহ ইন্তেকাল করেছেন। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *